1. [email protected] : admin :
৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ভোলায় দুই চাঁদাবাজ সাংবাদিক আটক | Monpura Times
সংবাদ শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ভোলায় যুবলীগের বিক্ষোভ মিছিল আদমশুমারীতে দলিতদের আলাদা তথ্য সংগ্রহের দাবীতে ভোলায় মানববন্ধন তজুমদ্দিনে অবৈধভাবে নদীর তীরের মাটি কাটায় মোবাইল কোর্টে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা এইচ আর ড্রিম আইটি সলিউশনের ডে নাইট ফুটবল টুর্নামেন্ট এর শুভ উদ্ধোধন ও পুরুষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠান – ২০২০ জুমার দিনের বিশেষ কিছু আমল উত্তরবঙ্গের সবচেয়ে বড় তথা বাংলাদেশের অন্যতম বৃহত্তম বিনোদনকেন্দ্রর নাম স্বপ্নপূরী দিনাজপুর জেলার সিভিল সার্জন করোনায় আক্রান্ত মনপুরায় বিজয় দিবস উদযাপনের প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত ভোলায় জঙ্গীবাদ মৌলবাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন তজুমদ্দিন সরকারি হাসপাতালে বিষ পানের রোগীকে চিকিৎসা না দিয়ে ফেরত
বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের পত্রিকায় আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন [email protected] অথবা [email protected]
৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ভোলায় দুই চাঁদাবাজ সাংবাদিক আটক

৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ভোলায় দুই চাঁদাবাজ সাংবাদিক আটক

অচিন্ত্য মজুমদার, জেলা প্রতিনিধি(ভোলা)

ভোলায় বাল্য বিয়ের বৈধতার কথা বলে চাঁদাবাজী করতে গিয়ে দুই কথিত সাংবাদিক পুলিশের হাতে আটক হয়েছে। সোমবার রাতে জাতীয় জরুরী সেবা নাম্বার ৯৯৯ এ ভূক্তভূগীরা ফোন দিলে পুলিশ তাদেরকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে। চাঁদাবাজীর অভিযুক্ত ওই সাংবাদিকরা হচ্ছেন, অজুর্ন চন্দ্র দে (৪০) ও তার সহকারী কম্যামেরাম্যান রাসেল (২৫) ।

পুলিশ, স্থানীয় এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগীরা, জানান, ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনয়নের স্লুইজগেইট এলাকায় সোমবার দুপুরে শানু সরদারের মেয়ের বিয়ের আয়োজন চলে। এসময় স্থানীয় অনলাইন পত্রিকার কথা বলে ভূয়া ২ সাংবাদিক সুমন ও পারভেজ ওই বিয়ে বাড়িতে গিয়ে বাল্য বিয়ে হচ্ছে বলে ৫ হাজার টাকা দাবী করেন। এ সময় স্থানীয়দের মধ্যস্থতায় এক হাজার পাঁচশত টাকা তাদের দিলে তারা চলে যায়। এ ঘটনার কিছু সময় পর কথিত সাংবাদিক অজুর্ন চন্দ্র দে ও তার ক্যামেরাম্যান রাসেল গিয়ে বাল্য বিয়ের কথা বলে ৫ হাজার টাকা চাঁদাদাবী করে। টাকা না দিলে তারা পুলিশকে জানিয়ে দিবে বলেও ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন। তখন মেয়ে পক্ষ জানায় তাদের মেয়ের বাল্য বিয়ে হচ্ছে না। তার পরও তারা ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকা দাবী করতে থাকে। এসময় স্থানীয় মেম্বার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান। তাদেরকে সাংবাদিক হিসাবে কেউ চিনতে না পারায় সন্দেহ হলে তাদের আটকে রেখে ৯৯৯ নাম্বারে ফোন দেয়। পরে পুলিশ রাত ৯ টার দিকে কথিত ওই ২ সাংবাদিককে আটক করে ভোলা সদর মডেল থানায় নিয়ে আসেন।

ভোলা থানার এসআই শেখ ফরিদ জানান, আটককৃতরা নিজেদের সাংবাদিক পরিচয় দিয়েছেন। তবে তাদের কাছ থেকে কোন পরিচয় পত্র পাওয়া যায়নি। তাদের কাছ থেকে একটি ডিএসএলআর ক্যামেরা উদ্ধার করা হয়েছে। এব্যাপারে ভূক্তভূগীদের পক্ষ থেকে একটি চাঁদাবাজী মামলার প্রস্তুুতি চলছে।

এদিকে অভিযোগ রয়েছে, অজুর্ন চন্দ্র দে বেশ কিছু দিন ধরে নিজে বিভিন্ন স্থানে ভোলা সদর উপজেলা অনলাইন প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন পত্রিকার সাংবাদিক হিসাবে পরিচয় দিয়ে আসছিলো।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন আগে ভোলা জেলা আইন-শৃঙ্খলা সভায় ভোলায় অনলাইনে ও ফেসবুকে ফেক আইডির মাধ্যমে ভুয়া হলুদ সাংবাদিকতার বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় এবং এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দাবি ওঠে।

সংবাদটি আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সর্বশেষ খবর

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © monpuratimes.com 2020.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com